মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১২ এপ্রিল ২০২১

সর্বাধিক জিজ্ঞাস্য প্রশ্নাবলি (FAQ)

প্রশ্ন- ০১  নেসকো কি?

উত্তরঃ উত্তরাঞ্চলে  (রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের) ১৬ টি জেলা ও ৩৯ টি উপজেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহকারী বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের একটি প্রতিষ্ঠান।

 

প্রশ্ন-০২: নেসকোর প্রধান কার্যালয় কোথায়?

উত্তরঃ হেতেম খাঁ , বিদ্যুৎ ভবন, রাজশাহী।

 

প্রশ্ন-০৩: জরুরি বিদ্যুৎ সেবা পেতে নেসকোর কোন কল সেন্টার নম্বর আছে কি?

উত্তরঃ হ্যাঁ। নেসকোর  কল সেন্টার নম্বর ১৬৬০৩ সপ্তাহে  ৭ দিন ২৪ ঘণ্টাই খোলা রয়েছে।

 

প্রশ্ন-০৪: ভুলবশত একই বিদ্যুৎ বিল দুইবার পরিশোধ করলে সমাধানের উপায় কি?

উত্তরঃ পরবর্তী মাসের বিদ্যুৎ বিলের সাথে তা সমন্বয় করা হবে।

 

প্রশ্ন-০৫: স্মার্ট প্রি-পেমেন্ট মিটারে কি পোস্ট পেমেন্ট মিটারের চেয়ে বিল বেশি আসে?

উত্তরঃ না। স্মার্ট প্রি-পেমেন্ট মিটার কিংবা পোস্ট পেমেন্ট মিটার উভয় ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (BERC) কর্তৃক নির্ধারিত ট্যারিফ অনুযায়ী বিদ্যুৎ বিল হিসাব করা হয়। সেক্ষেত্রে স্মার্ট প্রি- পেমেন্ট মিটারে বিদ্যুৎ বিল বেশি হবার কোন সুযোগ নাই।

 

প্রশ্ন-০৬: এক এরিয়ার গ্রাহক কি অন্য এরিয়ায় গিয়ে স্মার্ট মিটারে রিচার্জ করতে পারবে?

উত্তরঃ নগদ ও রকেট সহ অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে দেশের যে কোন এরিয়া থেকে কনজুমার নাম্বার দিয়ে স্মার্ট মিটারে রির্চাজ করতে পারবেন। একই সাথে এক এরিয়ার গ্রাহক অন্য এরিয়ার নির্ধারিত ভেন্ডিং (রিচার্জ) স্টেশন এ গিয়ে স্মার্ট মিটারে রিচার্জ করতে পারবেন। ভেন্ডিং স্টেশনের নির্ধারিত স্থান সমূহ নিন্মরুপঃ

 

  • বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ-১, নেসকো অফিস, সাগরপাড়া, রাজশাহী।
  • কলাবাগান, হেতেম খাঁ, নেসকো অফিস, রাজশাহী।
  • জনতা ব্যাংক, হেতেম খাঁ শাখা, রাজশাহী।
  • বাহিরগোলা, নেসকো বিদ্যুৎ অফিস, সিরাজগঞ্জ।
  • মিডল্যান্ড ব্যাংক লিমিটেড, গনকপাড়া, রাজশাহী।

 

প্রশ্ন-০৭: একমাসে একের অধিক রিচার্জ করলে কি প্রতিবারেই ডিমান্ড চার্জ কাটবে?

উত্তরঃ না। যে কোন মাসে প্রথমবার রিচার্জ করার সময় ঐ মাসের ডিমান্ড চার্জ এবং যদি পূর্বের কোন মাসের ডিমান্ড চার্জ বকেয়া থাকে তবে সেই পরিমান টাকা রিচার্জকৃত অর্থ হতে কর্তন করা হবে। কোন মাসে একবার ডিমান্ড চার্জ কাটা হলে ঐ মাসে পরবর্তীতে যে কোন রিচার্জের সময় ডিমান্ড চার্জ কাটা হবে না। 

 

প্রশ্ন-০৮: রাতের বেলা অথবা যেকোন সরকারি ছুটির দিনে ব্যালেন্স শেষ হয়ে গেলে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হবে কি?

উত্তরঃ রাতের বেলা অথবা যেকোন ছুটির দিনে মিটারের ব্যালেন্স শেষ হয়ে গেলে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হবে না। মিটারে প্রতিদিন বিকাল ৪:০০ হতে পরের দিন সকাল ১১:০০ টা পর্যন্ত  Friendly Hour, আর শুক্রবার ও শনিবার সহ যে কোন সরকারি ছুটির দিন ২৪ ঘন্টা Holiday হিসাবে উল্লেখ করা আছে। এই সময়ের মধ্যে মিটার ব্যালেন্স শেষ হয়ে গেলেও গ্রাহক বিদ্যুৎ ব্যবহার করতে পারবে। তবে, যে পরিমান বিদ্যুৎ ব্যবহার করবে মিটার তা নেগেটিভ হিসাবে জমা রাখবে এবং পরবর্তীতে রিচার্জ করা হলে ব্যবহৃত টাকা মিটারের ব্যালেন্স হতে কেটে নিবে।

 

প্রশ্ন-০৯: স্মার্ট প্রি-পেমেন্ট মিটার বসানোর সময় কি কোন টাকা নেয়া হবে?

উত্তরঃ না। স্মার্ট প্রি-পেমেন্ট মিটার বসানোর জন্য মিটার বাবদ কোন টাকা নেয়া হবে না।

 

প্রশ্ন-১০: নেসকো কি বিদ্যুৎ বিল বাবদ বেশি টাকা কাটে?

উত্তরঃ না।  বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (BERC) কর্তৃক নির্ধারিত ট্যারিফ অনুসারে বাংলাদেশের অন্যান্য বিদ্যুৎ বিতরন ইউটিলিটির মত একই হারে বিল হিসাব করা হয়।

 

প্রশ্ন-১১:  স্মার্ট প্রি-পেমেন্ট মিটার ব্যবহারে গ্রাহক আর্থিকভাবে কোন সুবিধা পাবে কি?

উত্তরঃ স্মার্ট মিটার ব্যবহারের ফলে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (BERC) কর্তৃক নির্ধারিত ট্যারিফ অনুসারে সম্মানিত গ্রাহকগন ১% রেয়াত (Rebate) সুবিধা পাবে।

 

প্রশ্ন-১২:  স্মার্ট মিটার ব্যবহারের ফলে বিদ্যুৎ ব্যবহারের তথ্য ও রিচার্জের পরিমান গ্রাহক কিভাবে জানতে পারবে?

উত্তরঃ নিন্মোক্ত শর্টকোড ব্যবহার করে গ্রাহক নিজে স্মার্ট মিটার থেকে বিদ্যুৎ ব্যবহারের তথ্য ও রিচার্জের পরিমান জানতে পারবে।

 

শর্ট কোড

বিবরণ

শর্ট কোড

বিবরণ

চুক্তিবদ্ধ লোড (Sanctioned Load)

১৮

ট্যারিফ ক্যাটাগরি

১৯

বর্তমান বিদ্যুতের রেট

৩২

ইমারজেন্সি ব্যালেন্স

৩৭

বর্তমান ব্যালেন্স

৩৯

ইমারজেন্সি ব্যাল্যান্স খরচের পরিমান

৪৫

সাপ্তাহিক ছুটির দিন (Holiday)

৪৬

ফ্রেন্ডলি আওয়ার (Friendly Hour)

৫২

ভোল্টেজ

৫৫

কারেন্ট

৬০

এখন পর্যন্ত বিদ্যুৎ (kWh) ব্যবহারের পরিমান

২০০

সর্বশেষ বিদ্যুৎ ক্রয়ের পরিমান

৪০০

চলতি মাসে বিদ্যুৎ ব্যবহারের পরিমান (kWh)

৪০১

গত মাসে বিদ্যুৎ ব্যবহারের পরিমান (kWh)

৪১৩

চলতি মাসে বিদ্যুৎ ব্যবহারের পরিমান (টাকা)

৪১৪

গত মাসে বিদ্যুৎ ব্যবহারের পরিমান (টাকা)

৪৭০

বর্তমান মাসে সর্বোচ্চ ব্যবহৃত লোড (Maximum Demand)

৯৯৯৯৯

ইমারজেন্সি ব্যালেন্স (Emergency Balance) গ্রহন

সবুজ LED

পর্যাপ্ত ব্যালেন্স আছে।

লাল LED

পর্যাপ্ত ব্যালেন্স নাই/ ইমারর্জেন্সি ব্যালেন্স চলছে।।

 
এছাড়া, নেসকোর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট http://prepaid.nesco.gov.bd/ থেকে স্মার্ট প্রি-পেমেন্ট মিটারে বিদ্যুৎ ব্যবহারের তথ্য ও রিচার্জের পরিমান জানা যাবে।

 

প্রশ্ন-১৩:   অনলাইনের মাধ্যমে মিটারে টাকা রিচার্জের পর কোন কারণে মিটারে টাকা রিচার্জ না হলে করণীয় কি ?

উত্তরঃ কোন কারনে রিচার্জকৃত এনার্জির টাকা মিটারে না গেলে, সেক্ষেত্রে প্রাপ্ত টোকেনে উল্লেখিত ২০ ডিজিটের নম্বরটি স্মার্ট মিটারের কী-প্যাডে চাপলে টাকা রিচার্জ হয়ে যাবে।

 

প্রশ্ন-১৪:  নেসকো ছাড়া অন্য কোন বিদ্যুৎ বিতরণকারী সংস্থা কি প্রি-পেমেন্ট মিটার স্থাপন করেছে ?

উত্তরঃ নেসকো ছাড়াও অন্যান্য ইউটিলিটি স্মার্ট মিটার স্থাপনের কাজ ইতোমধ্যে শুরু করেছে। নিন্মে সকল ইউটিলিটির স্মার্ট মিটার স্থাপনের তথ্য দেওয়া হলঃ

বিপিডিবি

আরইবি

ডিপিডিসি

ডেসকো

ওজোপাডিকো

নেসকো

১,৯৭,৬১৮ টি

৭,৫০,০০০ টি

৯৯,১৭৮ টি

২,১১,৭৭৮ টি

১,৪৯,৯৪১

২১,৬৪০ টি

 

প্রশ্ন-১৫:  এই স্মার্ট মিটার কি কার্ড সিস্টেম ? স্মার্ট মিটার পরিবর্তনের সময় যে কার্ড নাম্বার দেয়া হয়েছিল তা হারিয়ে গেলে করনীয় কি?  

উত্তরঃ এই স্মার্ট মিটার কী-প্যাড সিস্টেমের। অর্থাৎ স্মার্ট মিটার রিচার্জের জন্য কোন কার্ড সংরক্ষন/ব্যাবহারের প্রয়োজন নাই। গ্রাহক তার কনজুমার নাম্বার ব্যবহার করে যে কোন স্থান থেকে অনলাইনের মাধ্যমে কিংবা নির্ধারিত ইউটিলিটি ভেন্ডিং স্টেশন থেকে রিচার্জ করতে পারবে। 

 

প্রশ্ন-১৬: স্মার্ট মিটার নষ্ট হলে পরিবর্তনের সময় গ্রাহককে অর্থ পরিশোধ করতে হবে কিনা?

উত্তরঃ নষ্ট স্মার্ট মিটার পরিবর্তনের প্রয়োজন হলে, নেসকো কর্তৃক পরিবর্তন করা হবে। সেক্ষেত্রে গ্রাহক কর্তৃক কোন অর্থ পরিশোধ করতে হবে না।

 

প্রশ্ন-১৭: Friendly Hour, Holiday এবং Emergency Balance কি ?

উত্তরঃ Holiday: শুক্র ও শনিবার সহ অন্যান্য সরকারি ছুটির দিন।

Friendly Hour: প্রতি সপ্তাহের রবিবার হতে বৃহস্পতিবার বিকাল ৪:০০ থেকে পরের দিন সকাল ১১:০০ পর্যন্ত।

Emergency Balance: যেকোন সময় গ্রাহক প্রয়োজনে মিটারে ৯৯৯৯৯ টাইপ করে নীল বাটন চাপলে সিঙ্গেল ফেজ স্মার্ট মিটারের জন্য সর্বোচ্চ ২০০.০০ টাকা এবং থ্রি-ফেজ স্মার্ট মিটারের জন্য সর্বোচ্চ ৫০০.০০ টাকা পর্যন্ত ক্রেডিটে বিদ্যুৎ ব্যবহার করতে পারবে।

উল্লেখ্য যে, Holiday, Friendly Hour কিংবা Emergency Balance চালু থাকা অবস্থায় গ্রাহকের স্মার্ট মিটারে টাকা না থাকলেও ক্রেডিটে বিদ্যুৎ সরবরাহ সচল থাকবে।

 

প্রশ্ন-১৮: মসজিদ-মন্দির/ধর্মীয় উপাসনালয়/যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা কি পূর্বের ন্যায় একই হারে রেয়াত সুবিধা পাবে?

উত্তরঃ হ্যাঁ। স্মার্ট মিটার ব্যবহারের ক্ষেত্রেও মসজিদ-মন্দির/ধর্মীয় উপাসনালয়/যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা সকলেই সরকার কর্তৃক নির্ধারিত হারে পূর্বের ন্যায় রেয়াত সুবিধা পাবে।

 

প্রশ্ন-১৯: স্মার্ট মিটারে প্রথম রিচার্জ কি অফিসে এসে করতে হবে কিনা?

উত্তরঃ না। গ্রাহক চাইলে যে কোন স্থান থেকে অনলাইনের মাধ্যমে কিংবা নির্ধারিত ভেন্ডিং সেন্ট্রার থেকে রিচার্জ করতে পারবে।

 

প্রশ্ন-২০: কিভাবে স্মার্ট মিটার পরিবর্তন করা হচ্ছে?

উত্তরঃ স্মার্ট মিটার পরিবর্তনের পূর্বে সম্মানিত বিদ্যুৎ গ্রাহকের স্থাপনায় সার্ভে করা হবে এবং স্মার্ট মিটারের সুবিধা সম্বলিত লিফলেট বিতরন করা হবে। পরবর্তিতে, স্মার্ট মিটার স্থাপনের সময় স্মার্ট মিটারের ব্যবহারবিধি ও রিচার্জের পদ্ধতি বিস্তারিত অবহিত করা সহ লিফলেট প্রদান করা হবে।

 

প্রশ্ন-২১: স্মার্ট মিটার স্থাপনের পর পরবর্তিতে কোন সমস্যা হলে কোথায় যোগাযোগ করবো?

উত্তরঃ স্মার্ট মিটার সহ বিদ্যুৎ সংক্রান্ত যেকোন বিষয়ে সংশ্লিষ্ট বিতরন অফিসে যোগাযোগ করুন। তবে, স্মার্ট মিটার বিষয়ে যে কোন অভিযোগ কিংবা তথ্যের জন্য নিন্মোক্ত নাম্বারেও যোগাযোগ করতে পারবে।

 

  • স্মার্ট মিটারের অভিযোগ কেন্দ্রের নাম্বারঃ ০১৩২১-১২৪ ৫১৫ (রাজশাহী), ০১৩২১-১২৪ ৫১৬ (সিরাজগঞ্জ) এবং ০১৩২১-১২৪ ৫১৭ (নাটোর)
  • কল সেন্টারঃ ১৬৬০৩
  • ই-মেইলঃ complain@nesco.gov.bd

   info@nesco.gov.bd

 


Share with :

Facebook Facebook